লগ ইন
 

Logo

এন ডি এফ এর সেবা সমূহ

শিক্ষা সহায়তা

 

 

ছাত্র-ছাত্রীদের জন্য কোচিং সাপোর্ট (জেএসজি, এসএসসি) এবং কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির জন্য এককালীণ আর্থিক সহায়তা প্রদান করা হয়। এই সহায়তার ফলে গরীব ছাত্র/ছাত্রীরা পরীক্ষায় ভাল ফল করছে এবং ভবিষ্যৎ শিক্ষা গ্রহনের জন্য তাদের মধে আগ্রহ বাড়ছে।

২০১৮ সালে এনডিএফ কর্ম এলাকা ঘোড়াঘাট,গেবিন্দগ্‌জ,বিরামপুর,নবাবগ্‌জ ,ফুলবাড়ী,হাকিমপুর,পাবতীপুর,চিরিরবন্দর,দিনাজপুর সদর,পাচবিবি এবং রানীশংকৌল এর আদিবাসী  এইচএসসি,ডিগ্রী এবং মাষ্টার্ এ অধ্যায়নরত মোট ৯০ জন ছাত্র/ছাত্রীকে শিক্ষা সহায়তা দেয়া হয়।

সেবা

কারিগরি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে গ্রামীণ যুবতীদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি।
আদিবাসী ছেলে মেয়েদের শিক্ষা সহায়তা দেয়।
স্থানীয় জনগণের অংশগ্রহনে আদিবাসী বিকাশ কেন্দ্র এবং খাদ্যগোলা স্থাপন।
স্থানীয় জনগণের অংশগ্রহনে গ্রাম উন্নয়ন পরিষদ গঠন ( উন্নয়ন কেন্দ্র) স্থাপন।
উপকার ভোগীদের দ্বারা খাদ্য নিরাপত্তার জন্য মুষ্ঠির চাউল সংগ্রহ এবং সংরক্ষণ।
আদিবাসীদের সাংস্কৃতিক উন্নয়নে সহায়তা দান।
সরকারী এবং বেসরকারী প্রতিষ্ঠান, সুশীল সমাজ,মিডিয়া এবং বিভিন্ন পেশাজীবিদের সাথে সভা, সেমিনার, কর্মশালার আয়োজন করা।
বিভিন্ন জাতীয় এবং আনর্ত্মজাতিক দিবস উদযাপনের জন্য র‌্যালী, সেমিনার এর আয়োজন করা ।
প্রকল্প উপকারভোগীদের  জন্য  বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে জেন্ডার এবং সমতা, মানবাধিকার, নারীর ক্ষমতায়ন, প্রকৃতিক দুর্যোগ, সামাজিক অন্যায্যতা, উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা সক্ষমতা, হিসাব, স্থানীয় সম্পদ ব্যবস্থাপনা প্রক্ষিগণ এর আয়োজন করা নেতৃবৃন্দ এবং দলীয় সদস্যদের সাথে।

কারিগরি প্রশিড়্গণের মাধ্যমে গ্রামীণ যুবতীদের কর্মসংস্থান সৃষ্টি।

 

আদিবাসী ছেলে মেয়েদের শিড়্গা সহায়তা দেয়।

 

স্থানীয় জনগণের অংশগ্রহনে আদিবাসী বিকাশ কেন্দ্র এবং খাদ্যগোলা স্থাপন।

 

 

স্থানীয় জনগণের অংশগ্রহনে গ্রাম উন্নয়ন পরিষদ গঠন ( উন্নয়ন কেন্দ্র) স্থাপন।

 

 

উপকার ভোগীদের দ্বারা খাদ্য নিরাপত্তার জন্য মুষ্ঠির চাউল সংগ্রহ এবং সংরড়্গণ।

 

আদিবাসীদের সাংস্কৃতিক উন্নয়নে সহায়তা দান।

 

সরকারী এবং বেসরকারী প্রতিষ্ঠান,সুশীল সমাজ,মিডিয়া এবং বিভিন্ন পেশাজীবিদের সাথে সভা,সেমিনার,কর্মশালার আয়োজন করা।

 

বিভিন্ন জাতীয় এবং আনর্ত্মজাতিক দিবস উদযাপনের জন্য র‌্যালী,সেমিনার এর আয়োজন করা ।

 

প্রকল্প উপকারভোগীদের  জন্য  বিভিন্ন ইস্যু নিয়ে জেন্ডার এবং সমতা,মানবাধিকার,নারীর ড়্গমতায়ন,প্রকৃতিক দুর্যোগ,সামাজিক অন্যায্যতা,উন্নয়ন ও ব্যবস্থাপনা সড়্গমতা,হিসাব,স্থানীয় সম্পদ ব্যবস্থাপনা প্রশিড়্গণ এর আয়োজন করা নেতৃবৃন্দ এবং দলীয় সদস্যদের সাথে।

 

 

সঞ্চয় ও ঋণকর্মসূচী ।

সঞ্চয় এবং ড়্গুদ্রঋণ কার্য্যক্রম দল এবং সিবিওস পর্যায়ে ।

 

দলীয় সদস্যগণ মূলধন সৃষ্টিতে  সাপ্তাহিক ভাবে সঞ্চয় করে এবং ঋণ কার্য্যক্রম পরিচালনা করে। স্থানীয় ভাবে বিভিন্ন  আয়বৃদ্ধি মূলক কাজে জড়িত হয়। এনডিএফ এর নিয়ম কানুন তাদের কে সহায়তা করে  থাকে তাদের দড়্গতা ও সড়্গমতা উন্নয়নে।

সৌর বিদ্যুৎ

এনডিএফ উদ্যোগ নিয়েছে গ্রামীন জনগনের মধ্যে সচেতনতা তৈরী, একত্রীকরণ এবং প্রশিক্ষণের মাধ্যমে   প্রাকৃতিক এবং স্থানীয়  সম্পদ ব্যবহার করে  উপকৃত হবে । এখনও অনেক বাড়ী আছে যে, সেখানে বিদ্যুৎ এর অলো পৌছায় নাই । 

বঞ্চিত বাড়ীর গুলোর দাবীর কারণে এনডিএফ উদ্যোগ নেয় ২০১৩ সাল থেকে ঋণের মাধ্যমে বাড়ীতে সৌর বিদ্যুৎ স্থাপন করে । এখন তাদের ছেলে মেয়েরা  সৌর বিদ্যুতের আলোতে লেখা পড়া করতে  পারে। সুযোগ সৃষ্টি হয়েছে রাতে টিভি দেখার এবং মোবাইল ফেনে চার্জ করার।

মোবাইল ট্রেড স্কুল:

২০০৫ সাল হতে ২০১৮ সাল পর্যন্ত ১১৭৯ জন কোর্স সমাপ্তকারীর মধ্যে ১১০৬ জন ছাত্র/ছাত্রীকে কর্মসংস্থানের সুযোগ করে দেয়া হয়েছে। ৩১৯ জন দর্জ্জি বিজ্ঞান সেকশন থেকে কোর্স সমাপ্তকারীর মধ্য থেকে ২৭৬ জন ঢাকায় গার্মেন্টস এ কাজ করছেন এবং বাকী ৪৩জন তাদের বাড়ীতে সেলাইয়ের কাজ করে বাড়তি রোজগার করছেন। ৩০৯ জন অটোমোবাইল সেকশন থেকে কোর্স সমাপ্ত করে ২৩৬ জন  ঢাকায় বিভিন্ন কোম্পানিতে চাকুরী করছেন এবং ৭৩ জন ওয়ালটন এবং স্কুয়ার কাজ করছেন। ৪০ জন পারটেক্স সেকশন থেকে কোর্স সমাপ্ত করে সবাই ঢাকায় বিভিন্ন পারটেক্স কোম্পানিতে চাকুরী করছেন। ৫০জন ইলেকট্রিক সেকশন থেকে কোর্স সমাপ্ত করে ঢাকা,নারায়ণগঞ্জ,নরসিংদিতে আরএফএল,মেঘনা গ্রুপ এবং হাইটেল কোম্পানিতে চাকুরীরত আছেন। ১৬০ ইলেকটোনিক্স সেকশন থেকে কোর্স সমাপ্ত করে খুলনা ইপিজেড এবং নরসিংদী আরএফএল এ চাকুরী করছেন। ৭০ জন সেলুনের কাজ শিখে নিজেরাই দোকান দিয়েছেন। ৩৫ জন মটর ড্রাইভিং শিখে ট্রাক এবং ট্রলিতে কাজ করছেন। ১০০ জন কম্পিউটার শিখে নিজেরা কাজ করছেন। ২২ জন রেফ্রিজারেশন এর কাজ শিখে ঢাকার বেংগল রেফ্রিজারেশন এ চাকুরীরত আছেন। ১জন মেশিনিষ্ট এর কাজ শিখে বিরগঞ্জ এ নিজেই দোকান দিয়েছেন।  টেইলরিং বিভাগে কোর্স সমাপনী শেষে শিক্ষার্থীদের মধ্যে সেলাই মেশিন বিতরণ করা হয়। উক্ত কোর্স সমাপনী ও সনদ বিতরণী অনুষ্ঠানে সাধারণত সংশ্লিষ্ট উপজেলা নির্বাহী অফিসার,স্থানীয় জন প্রতিনিধিসহ এনডিএফ এর পরিচালক উপস্থিত থাকেন।

আইনী সহায়তা :

আদিবাসীদের উপর মিথ্যা কোর্ট কেসের জন্য আইনী সহায়তা প্রদান করা হয়। আইনী সহায়তা কমিটির মাধ্যমে সমস্যা সমাধানের জন্য তারা মধ্যস্থতাকরণ এবং সালিশ করছে।

২০১৮  সালে চিরিরবন্দর এ ২৪ জন,পারবতীপুরে ১৫ জন,ফুলবাড়ীতে ২২ জন,হাকিমপুরে ১৯ জন,বিরামপুরে ৪০ জন ঘোড়াঘাটে ১৬ জন এবং গোবিন্দগনজ এ ১৪ জন মোট ১৫০ জন আদিবাসীকে তাদের জমি খারিজ এবং কাগজ পত্র উত্তেলনের জন্য আথিক সহায়তা দেয়া হয়েছে।

বন্ধকী জমি উদ্ধার:

কর্মএলাকায় ১৩৭ জন আদিবাসী সদস্যের ৬৪.১৬ একর বন্ধকী জমি উদ্ধারে আর্থিক সহায়তা  করা হয়েছে এবং উদ্ধারকৃত জমিগুলিতে জমির মালিকসহ স্থানীয় ভমিহীন সদস্যদের নিয়ে গ্রুপ ফার্মিং এর মাধ্যমে আধুনিক পদ্ধতিতে চাষাবাদ করা হচ্ছে।

প্রর্দশনীপ্লট

প্রতি বছরের ন্যায় ২০১৮ সালে কর্ম এলাকায় ৮টি উপজেলায় ৮০০ জন সদস্যকে প্রতি জনকে ৫টি গাছের চারা ( আম,কাঠাল,নিম,তেজপাত,জলপাই মোট ৪০০০ চারা  বিতরণ করা হয়  এবং প্রতি উপজেলায় ২০০ জন সদস্য’র মাঝে  মোট ১৬০০ জন সদস্যকে বসত বাটিতে শাক-সব্জী চাষাবাদের জন্য শাক-সব্জী র বীজ বিতরণ করা হয়। দলীয় সদস্যগণ শাক-সাব্জী চাষ করার ফলে তাদের পুষ্ঠি চাহিদা পূরণের পাশাপাশি  পারিবারিক আয় বৃদ্ধি   পেয়েছে।


 

NGO সমূহ